রামরাজ্য নয় জঙ্গলরাজ! আলিগড়ের সরকারি হাসপাতালে করোনা রোগীকে ধর্ষণের চেষ্টা ডাক্তারের

484

পিপিএন বাংলা, নিউজ ডেস্ক: যোগী আদিত্যনাথ শাসিত উত্তরপ্রদেশ থেকে মানবতাকে লজ্জিত করার মত একটি ঘটনা সামনে এসেছে। আলীগড়ের দীনদয়াল উপাধ্যায় হাসপাতালে কোভিড ওয়ার্ডে ভর্তি এক যুবতীর সাথে চিকিৎসারত ডাক্তার ধর্ষণের চেষ্টা করেছে।

যুবতীর বক্তব্যের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত ডাক্তারের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি (আইপিসি) 376 (2) ধারায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করে গ্রেপ্তার করেছে । উল্লেখ্য ওই যুবতী একটি বেসরকারী সংস্থায় কাজ করতেন। করোনা পজিটিভ হওয়ার পরে 19শে জুলাই সে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলেন এবং তাকে কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল।

সূত্র অনুসারে, মঙ্গলবার রাতে কোভিড -১৯ ওয়ার্ড এল -২ এ কর্তব্যরত অভিযুক্ত চিকিৎসক কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডে গিয়েছিলেন। ওয়ার্ডে এর বেড নাম্বার 16-তে ভর্তি যুবতীকে চেকআপ এর নামে ধর্ষণ করার চেষ্টা করেছিলেন ওই ডাক্তার বলে অভিযোগ। পিড়িতা যুবতী বলেছেন যে চিকিৎসক তার শরীরে খারাপ ভাবে দু’বার হাত দিয়েছে এবং তার গোপনাঙ্গ স্পর্শ করেছেন।

পিড়িতা তার বাবাকে ডাক্তারের অশ্লীল ব্যবহার সম্পর্কে জানায়, তার পরে তার পরিবারের সদস্যরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ার পর হাসপাতাল ও জেলা প্রশাসন নড়েচড়ে বসেন। বিষয়টি তদন্তের জন্য আধিকারিকদের তাৎক্ষণিকভাবে হাসপাতালে পাঠিয়ে ছিলেন।

ডিডিইউ হাসপাতালে পৌঁছে আধিকারিকরা প্রথমে সিসিটিভি ফুটেজটি পরীক্ষা করে দেখেন। অফিসারেরা প্রায় দুই ঘন্টা ধরে সিসিটিভি ফুটেজ দেখছিলেন। সিসিটিভি ফুটেজ অভিযুক্ত চিকিৎসকে যুবতীর সাথে শ্রীলতাহানি করতে দেখা গেছে। তারপরে এসিএম ফুটেজটি ডিএমকে পাঠান। সিসিটিভি ফুটেজ দেখার পরে ডিএম ডাক্তারকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন। বর্তমানে অভিযুক্ত চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্তকে বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হবে। সূত্র: বোলতা হিন্দুস্তান

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here