ভক্তরা যখন ঘন্টা,তালি-থালি বাজাচ্ছিল,তখন মুসলিমেরা ধরনা ছেড়ে মাস্ক বিতরণ শুরু করে, এটাই মানবতা

পিপিএন বাংলা, নিউজ ডেস্ক: দেশের মূলধারার সংবাদ মাধ্যমগুলি মুসলমানদের দেশ-বিরোধী হিসাবে প্রমাণ করার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে বাস্তবতা হ’ল যখনই দেশে কোনও সংকট দেখা যায়, সেই সময় সবচেয়ে বেশি মুসলিম সম্প্রদায় দেশ ও দেশের সাধারণ জনগণকে রক্ষার জন্য মাটিতে নেমে আসে।

বর্তমান সঙ্কট যা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে তা হ’ল করোন ভাইরাস। এই ভাইরাস মোকাবেলায় মুসলিম সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে একটি দুর্দান্ত উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আসলে, দিল্লি, উত্তর প্রদেশ সহ দেশের অনেক জায়গায় মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সাধারণ মানুষকে বিনা মূল্যে মুখোশ বিতরণ করছে।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হ’ল মুসলমানদের এই উদ্যোগ এমন এক সময়ে এসেছে যখন ভারী চাহিদার কারণে দেশজুড়ে মাস্কস এবং স্যানিটাইজারগুলি বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। এই কালো বাজারির কারণে সাধারণ জনগণ মাস্ক এবং স্যানিটাইজার ক্রয় করতে পারেনা। যার কারণে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বেড়েছে। এই বিপদ এড়াতে মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা এই উদ্যোগটি নিচ্ছেন।

মুসলমানদের এই উদ্যোগের অনেকগুলি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে। ছবিগুলি শেয়ার করে নেওয়ার পাশাপাশি ব্যবহারকারীরা মুসলিম সম্প্রদায়ের এই উদ্যোগের প্রশংসা করছেন।

প্রাক্তন সাংবাদিক ও সমাজ সেবী শিল্পী চৌধুরী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবিটি শেয়ার করে তিনি লিখেন, ” এখনে কেউ সম্প্রদায়ের কথা বলছো না কেন (হিন্দু-মুসলিম)। এই মুসলিমগুলো মৃত্যুর ভয়ে ধরনা স্থগিত করেনি। বরং এই সম্প্রদায়টি মানুষের জীবন বাঁচাতে ধর্নায় স্থগিত করেছে। এটি আলাদা বিষয় যে প্লেট-তালি দিয়ে লোকেরা নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের জীবন বাঁচাতে প্লেট বাজাচ্ছেন। আজ যা প্রয়োজন তা পূরণ করায় হচ্ছে মানবতা।

সূত্র:-বোলতা হিন্দুস্থান

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here