যোগীর রাজরোষেই কী গ্রেফতার উমর গৌতম? তার হাতে মুসলিম হওয়া ১০০০ ব্যক্তির কোনো অভিযোগ নেই

1376

পিপিএন বাংলা, নিউজ ডেস্ক: উত্তর প্রদেশ পুলিশ উমর গৌতমকে গ্রেফতার করেছে। তিনি একজন ধর্মান্তরিত মুসলিম, তার আগের নাম ছিল প্রতাপ সিং গৌতম। এছাড়া মুফতি জাহাঙ্গির কাসিমকেও আটক করেছে যোগীর রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। উত্তর প্রদেশের বিতর্কিত ধর্মান্তরবিরোধী আইনে এ দু’ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের অভিযোগ, তারা জোরপূর্বক এক হাজার হিন্দুকে মুসলিম বানিয়েছে।

কিন্তু, মজার বিষয় হলো, হিন্দু থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হওয়া ওই এক হাজার ব্যক্তির মধ্যে কেউই এমন অভিযোগ করেননি যে তাকে জোর করে ধর্মান্তরিত করা হয়েছে। এমনকি হিন্দু থেকে ধর্মান্তরিত ওই মুসলিমরা তার বিরুদ্ধে কখনো কোনো মামলা বা অভিযোগ করেননি। এছাড়া তারা ভারতের কোনো গণমাধ্যমের সামনেও বলেননি যে তাদের জোর করে মুসলিম বানানো হয়েছে।এদিকে উমর গৌতম ও জাহাঙ্গির কাসিমের বিরুদ্ধে পুলিশের তদন্তে বিভিন্ন সমস্যার উদ্ভব হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুসারে, উত্তর প্রদেশ পুলিশের একটি দল ২৩ জুন সাহারানপুর জেলার শিতলা খেদা গ্রামে যান এবং আব্দুল সামাদ নামের এক ব্যক্তিকে খুঁজে পান। এ ব্যক্তি ওই এক হাজার ব্যক্তির মধ্যে একজন যিনি ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হয়েছেন। অভিযোগ ছিল, আব্দুল সামাদকে জোর করে মুসলিম বানানো হয়েছে। কিন্তু, পুলিশ ওউ ঠিকানায় গিয়ে আব্দুল সামাদ নামের কাউকে খুঁজে পাননি বরং এক কট্টর হিন্দু ব্যক্তির সন্ধান পান।

ওই কট্টর হিন্দু ব্যক্তি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে নিয়ে বইও লিখেছিলেন। আর সবচেয়ে বড় কথা হলো এ কট্টর হিন্দু ব্যক্তি কখনোই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করনেনি। ওই হিন্দু ব্যক্তির নাম প্রভিন কুমার। ওই ব্যক্তি এটাও জানতেন যে, তার নাম পুলিশের মামলায় এসেছে এমনভাবে যে তাকে জোর করে মুসলিম বানানো হয়েছে।

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here