যাকে কুত্তাও মর্যাদা দেয় না সে আমাকে জেলে দেবে! নাম না করে দলের বিধায়ক কে আক্রমণ ইয়াসিনের

365

আব্দুল কাদির, চাঁচল: ইত্তেহাদুল আয়েম্মা অ্যান্ড মােয়াজ্জেন সেবা সমিতির উদ্যোগে রতুয়া ফুটবল স্টেডিয়ামে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় এলাকার ১০০০ জন ইমাম ও মুয়াজ্জিন সহ প্রায় ২ হাজার জন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন বলে দাবি আয়োজকদের। এদিনের সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রতুয়া বিধানসভার যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শেখ ইয়াসিন।

শেখ ইয়াসিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে নিজ দলের একাংশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তিনি বলেন, রতুয়ায় বিজেপি ও কংগ্রেস কে মাটি খুঁড়েও খুজে পাওয়া যেত না। যদি দলের কিছু নেতা দলের সাথে গাদ্দারি করে বিরোধীদের অক্সিজেন না দিতো। ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে যাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে রতুয়া ১ ব্লক কে বিরোধীশূন্য করেছিলাম। তারাই দলে যোগ দিয়ে আমাকে জেলে পুড়ে মারার হুমকি দিচ্ছে। তিনি নাম না করে স্থানীয় বিধায়ক সমর মুখার্জী কে আক্রমণ করে বলেন, “যাকে কুত্তাও মর্যাদা দেই না, সে নাকি আমাকে জেলে পুরে মারবে! আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি, এই সব নেতাকে যদি জনগণ বিধানসভার পূর্বে অবসরে না পাঠিয়ে দেয়। তবে আমি প্রত্যেক অঞ্চলে মাথা ন্যাড়া করে ঘুরবো। এসব ষড়যন্ত্রের জবাব আগামী বিধানসভায় রতুয়ার আপামর জনতা দেবে।

এমনকি তিনি জেলা নেতৃত্বকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, রতুয়া বিধানসভার দলের অবজার্ভার মানব ব্যানার্জি ও বিধায়ক সমর মুখার্জিকে যদি তাদের পদে বহাল রাখা হয়। তাহলে উত্তর মালদায় দল আরো খারাপ ফল করবে। তিনি বলেন, এসব নেতার কোন বিশ্বাস নেয়। আজকে দলে পদ না পেলে এরা রাতারাতি সাম্প্রদায়িক দল বিজেপিতে জয়েন করবে। এদিনের সভায় শেখ ইয়াসিন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি মোশার্রফ হোসেন, মাওলানা আব্দুস সামাদ, মাওলানা মোজাম্মেল হক প্রমূখ।

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here