বিজেপি বর্বর অসভ্যদের দল! ওরা সতী নারীদের ঘর ভাঙে আর চরিত্রহীন দের পুজো করে: সুজাতা

282

পিপিএন বাংলা, নিউজ ডেস্ক: সক্রিয় ভূমিকায় সোমবার পদ্ম শিবিরে অবতীর্ণ হলেন শোভন ও বৈশাখী। তাঁদের উদ্দেশ্য করে বেনজির আক্রমন শানালেন সদ্য বিজেপি ছেড়ে সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া সুজাতা মণ্ডল খাঁ। বিষ্ণুপুর লোকসভা অধীন পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষে এদিন তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে, বৈশাখী ব্যানার্জীর নাম মুখে না এনে তাঁকে ‘অসতী নারী’ বলে কটাক্ষ করলেন সুজাতা।

একই সঙ্গে সুজাতা বলেন, বিজেপিতে কোনও সতী নারীদের জায়গা নেই। বিজেপি সতী নারীদের ঘর ভাঙে আর অসতীদের পুজো করে। সুজাতা এবং তাঁর বক্তব্যকে যদিও পাত্তাই দিতে চাননি বৈশাখী ব্যানার্জী। পালটা প্রতিক্রয়ায় তিনি বলেছেন, ওঁর কথার কোনও গুরুত্ব আমি দিতে চাই না। ওঁর কথা আমার কাছে যত কম বলবেন ততোই ভালো।জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে সুজাতা মণ্ডল খাঁ আরও বলেন, বিষ্ণুপুর লোকসভার মানুষ আমাকে রাজনীতির ময়দানে জায়গা করে দিয়েছিল।

সেই লোকসভার অধীন খণ্ডঘোষ বিধানসভায় এই প্রথম তিনি রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দিলেন বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, বিজেপি দলটা, বর্বর, অসভ্য, সাম্প্রদায়িক ও ভেকধারীদের। ওই দলে মহিলাদের কোনও সন্মান নেই। বিজেপি নেতারা মুখে যা বলে কাজে তা করে না। বিজেপির লোকজন মুখে জয় ‘শ্রীরাম’ বলে। আমিও বলি। রামচন্দ্রকে আমরা সবাই ভক্তি করি।

কোথাও লেখানেই শ্রীরাম চন্দ্র শুধুমাত্র বিজেপির ভগবান। এদিনের সভায় সুজাতা ছাড়াও তৃণমূলের রাজ্যের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ, দেবু টুডু, মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, প্রাক্তন সাংসদ মমতাজ সংঘমিতা, জেলা যুব সভাপতি রাসবিহারী হালদার সহ অন্য নেতা-নেত্রী ও বিধায়করা উপস্থিত ছিলেন।

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here