যোগীজি “খাদ্য,কাপড়ের উপর নজরদারি ছাড়ুন”, মহিলাদের নিরাপত্তা দিন: বরুণ গ্রোভার

পিপিএন বাংলা, নিউজ ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে আইন শৃঙ্খলা পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। দুর্বৃত্তরা এমনভাবে অপরাধমূলক ঘটনা ঘটাচ্ছে যাতে মনে হচ্ছে রাজ্যে পুলিশ প্রশাসন বলে কিছু্ই নেই । সাম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ জেলায় ধর্ষিতার বাবা কে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে জন মহলে। যে অপরাধীরা ন্যাক্কারজনক হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটিয়েছে তারা মাস ছয়েক আগে নিহতের নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ করেছিল বলে অভিযোগ। অভিযুক্তের নাম আচমান উপাধ্যায়। বলা হচ্ছে অভিযুক্ত ধর্ষিতার পিতাকে তার বিরুদ্ধে করা ধর্ষণ মামলা প্রত্যাহারের চাপ দিচ্ছিল। কিন্তু ধর্ষিতার বাবার মামলা প্রত্যাহার করতে অস্বীকার করলে তাকে হত্যা করে দেয় অভিযুক্তরা।

এই ঘটনা নিয়ে বলিউডের বিখ্যাত চিত্রনাট্যকার বরুণ গ্রোভার মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ কে কটাক্ষ করে টুইট করেন। তিনি বলেন, “পড়ুন এবং বুঝার চেষ্টা করুন। উত্তরপ্রদেশ এমন একটি রাজ্য যেখানে মুখ্যমন্ত্রী জনগণের বাড়িতে এসে জ্ঞান বিতরণ করেন, যে আপনার অমুক প্রতিবেশী এবং সহকর্মী দেশদ্রোহী। আপনি কী খাবেন, কী পরিধান করবেন এবং কার থেকে দূরে থাকতে হবে তা বলেন। উনি আপনাদের শিশু হিসাবে রাখতে চান, তবে বড় হওয়া আপনার হাতে রয়েছে।

স্থানীয় থানার পুলিশ অপরাধীদের আড়াল করার চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ। এসএসপি সচিন্দ্র প্যাটেল শিকোহাবাদ থানার আইসি লোকেন্দ্র সিং সহ চারজন পুলিশকে সাসপেন্ড করেছেন। এসএসপি শচীন্দ্র প্যাটেল বললেন, আসামিদের খুঁজতে পুলিশ জায়গায়-জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে। আশা করছি অভিযুক্তদের শীঘ্রই গ্রেফতার করা হবে।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, আচমন উপাধ্যায় মামলা প্রত্যাহারের জন্য চাপ দিতে থাকে। আচমন গত ১ ফেব্রুয়ারি বাড়ি এসে হুমকি দেয় যদি মামলা প্রত্যাহার না করে তাহলে পাঁচ দিনের মধ্যে পরিবারের সদস্যদের হত্যা করা হবে। এরপর আমরা পুলিশকে জানায় কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। পুলিশ ঠিক সময়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করলে একটা তরতাজা জীবন আমাদের হারাতে হতো না।

সূত্র:- বোলতা হিন্দুস্তান

https://twitter.com/varungrover/status/1227473310394540033?s=20

Comment

Please enter your comment!
Please enter your name here